ডিজিটাল মার্কেটিং কি ?

আধুনিক যুগের সাথে তাল মিলিয়ে ব্যবসা করার জন্য ডিজিটাল মার্কেটিং এর ব্যবহার দিন দিন বেড়েই চলছে। ডিজিটাল মার্কেটিং একটি লাভজনক মাধ্যম। বতর্মান বিশ্বে অনেক নতুন নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবন হয়েছে। বতর্মান যুগ এখন ইন্টানেটের যুগ। আমরা সবাই এখন ইন্টারনেট ব্যবহার করে থাকি। বতর্মান এই আধুনিক যুগে আমরা ইন্টারনেটের উপরে অনেক নির্ভরশীল। ইন্টারনেট ছাড়া আমরা এক মুহুর্ত ও ভাবতে পারি না। বতর্মান এই ইন্টারনেটের যুগে আমরা ঘরে বসেই আমাদের প্রয়োজনীয় সকল কিছু ক্রয় বিক্রয় করে থাকি। বতর্মানে এই ইন্টারনেটের মাধ্যমে আমরা আমাদের ব্যবসা সহ সকল পণ্যের প্রচার করে থাকি।

আমরা জানি কোনো পণ্য বা সেবার মান উন্নয়নের দিক উল্লেখ করে তথ্যপ্রযুক্তি অনলাইনের মাধ্যমে বিভিন্ন জনপ্রিয় ওয়েবসাইট বা সোশাল মিডিয়া তে প্রচার-প্রচারণার মার্কেটিং করাকেই ডিজিটাল মার্কেটিং বলে। ডিজিটাল মার্কেটিং করে ব্যবসা খুব দ্রুত প্রচার করা যায়। ডিজিটাল মার্কেটিং এর মাধ্যমে ব্যবসার প্রচার অনেক লাভজনক হয়। ডিজিটাল মার্কেটিং এর অনেক গুলো সুবিধা পাওয়া যায় তার মধ্যে হলো, খরব কম হয় আর টাগের্টেট ট্যাফিক পাপয়া যায়। ডিজিটাল মার্কেটিং করলে খুব তাড়াতাড়ি ব্যবসার প্রচার হয়। আপনি অনলাইনে অথবা অফলাইনে যেখানেই ব্যবসা করেন না কেনো আপনাকে মার্কেটিং করতেই হবে। মার্কেটিং না করলে ব্যবসায় সফল হতে পারবেন না। আপনার ব্যবসা যত প্রচার করবেন তত বেশি আয় করতে পারবেন। 

আগেকার সময়ে ব্যবসা প্রচার করার জন্য টেলিভিশন ব্যবহার করা হতো। সেখানে আবার সেই পণ্য প্রচারের জন্য মডেল ব্যবহার করা হতো। এতে ব্যবসার মুলধনের প্রচুর একটা অংশ তখন মার্কেটিং করে শেষ হয়ে যেত। সেজন্য ব্যবসায় বেশি লাভ হতো না। আবার পএিকায় একটা ছোট বিঙ্গাপন দিলেও অনেক টাকা খরচ হয়। যা অনেক ব্যয়বহুল। পএিকায় বিঙ্গাপন দিলে সবার কাছে যায় না কারণ সবাই পএিকা পড়ে না। কিন্তু সোশাল মিডিয়াতে দিলে সবার কাছেই যায় তাও আবার অনেক কম খরচে বিঙ্গাপন দেওয়া যায়। 

কিন্তু এখন ইন্টারনেটের মাধ্যমে ডিজিটাল মার্কেটিং করলে বেশি অর্থ ব্যয় হয় না। ইন্টারনেটে মার্কেটিং করতে কোনো মডেল লাগে না। এতে করে ব্যবসায় খরচ অনেক কম হয়। বতর্মান যুগে ডিজিটাল মার্কেটিং করে অনেক বিক্রি বেড়েছে।  ডিজিটাল 

মার্কেটিং করতে যেহেতু খরচ কম হয় সেজন্য প্রচুর টাকা লাভ হয়। যে কারণে বতর্মানে ডিজিটাল মার্কেটিং এর ব্যবহার প্রতিনিয়ত ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে। বতর্মান যুগে ব্যবসায় টিকে থাকার জন্য ডিজিটাল মার্কেটিং এর বিকল্প নেই। বর্তমান এই আধুনিক যুগে ডিজিটাল মার্কেটিং না করলে বাজারে ব্যবসা টিকিয়ে রাখা অসম্ভব হয়ে পড়বে। 

আগেকার সময়ের মতো ব্যবসা এখন করলে বাজারে টিকতে পারবে না। ব্যবসা করতে হলে যুগের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে হবে। যুগের সাথে তাল মিলিয়ে না চলতে পারলে ব্যবসা হবে না। কারণ বর্তমান সময়ে সবাই ইন্টারনেট ব্যবহার করে। সবাই ইন্টারনেট থেকে পণ্য ক্রয় বিক্রয় করে। তাই ডিজিটাল মার্কেটিং না করলে যুগের সাথে তাল মিলিয়ে না চললে ব্যবসা টিকিয়ে রাখা সম্ভব হবে না। 

ডিজিটাল মার্কেটিং হচ্ছে মূলত ডিজিটাল মিডিয়া এবং ডিজিটাল টেকনোলজি ব্যবহার করে অনলাইনে কোনো পোডাক্ট বা পণ্যের কেম্পেইন পরিচালনা করা। যত ধরনের অনলাইন মার্কেটিং আছে যেগুলোর মাধ্যমে আমরা কোনো পোডাক্টের মার্কেটিং বা কেম্পেইন পরিচালনা করার জন্য যতগুলো পন্থা অবলম্বন করি সবগুলো মিলেই ডিজিটাল মার্কেটিং। ডিজিটাল মার্কেটিং অনেক পন্থায় করা যায়। তার মধ্যে অন্যতম হলো স্যোশাল মিডিয়া মার্কেটিং। সোশাল মিডিয়া মার্কেটিং করে ব্যবসা খুব দ্রুত প্রচার করা যায়। বর্তমানে সবাই সোশাল মিডিয়া ব্যবহার করে থাকে। এজন্য সোশাল মিডিয়া মার্কেটিং করলে খুব দ্রুত ব্যবসা বা পণ্য প্রচার হবে। সোশাল মিডিয়া মার্কেটিং গুলোর মধ্যে হলো ঃ ফেসবুক মার্কেটিং,  ইনস্টাগ্রাম মার্কেটিং,টুইটার মার্কেটিং,লিনকেডিন মার্কেটিং ইত্যাদি।  এছাড়াও আরও অনেক উপায়ে ডিজিটাল মার্কেটিং করা যায়।  যেমনঃ ইমেইল মার্কেটিং,সিইও মার্কেটিং,ওয়েবসাইট মার্কেটিং ইত্যাদি। 

ডিজিটাল মার্কেটিং এর মাধ্যমে সবাই ব্যবসা প্রচার করে এখন। দিন যতো যাচ্ছে ডিজিটাল মার্কেটিং সেক্টর আরও বেশি জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। আপনি যদি আপনার ব্যবসাকে সফল হিসেবে দেখতে চান তাহলে আপনাকে ডিজিটাল মার্কেটিং করতে হবে এবং আকর্যনীয়ভাবে আপনার পণ্যকে ক্রেতার কাছে তুলে ধরতে হবে। আর যদি ডিজিটাল মার্কেটিং না করেন তাহলে আপনি ব্যবসায় টিকে থাকতে পারবেন না।

Enjoyed this article? Stay informed by joining our newsletter!

Comments

You must be logged in to post a comment.

লেখক সম্পর্কেঃ