চলো ঘুরে আসি অনলাইন ব্যবসার দুনিয়া থেকে

আমি জানি এই পোস্টে যারা পড়বে তারা সবাই অনলাইন ব্যবসা সম্বন্ধে কোনো না কোনোভাবে অনেক কিছু জেনেছো বা করছো। কিন্তু আমার এই ছোট্ট মস্তিষ্ক দিয়ে আজকে তোমাদের আহরিত জ্ঞানকে আরেকটু সমৃদ্ধ করার চেষ্টা করব। আমি জানিনা কতটুকু পারবো কিন্তু ইনশাল্লাহ তোমরাই পোষ্টের মাধ্যমে ভালো কিছু পাবে।

সো বন্ধুরা চলো আমরা আজকে আমাদের কনটেন্ট শুরু করি। ও আর হ্যাঁ বলে রাখি বরাবরের মতো আমি আছি তোমাদের সাথে মামা ভাই।

অনলাইন ব্যবসা শুরু করব কিভাবে সেটা নিয়ে কিছু অংশ বলব এবং আরেকাংশ কথা বলবো কিভাবে তোমরা অনলাইন ব্যবসাটাকে আরো বাড়াতে পারো যদি তোমরা ইতিমধ্যে অনলাইন ব্যবসা জড়িয়ে থাকো।

কিভাবে শুরু করব অনলাইন ব্যবসা?🤔

ব্যবসা করার মানসিকতা:

হ্যা বন্ধুরা আপনারা ব্যবসার জগতে আসার আগেই বলতে চাচ্ছি ব্যবসা করার মানসিকতা নিয়ে আসার জন্য। আপনারা যত বড় বড় বিজনেসম্যান দেখবেন, তারা কেউ হঠাৎ করে এত বড় ব্যবসায়ী হয়ে ওঠেনি। তারা সবাই কোনো না কোনো ছোট থেকে শুরু করেছে। তাই বলছি ব্যবসা করার আগে আপনি মানসিকভাবে প্রস্তুত হন। আপনি কি আসলেই ব্যবসা ভিতরে আসতে চাচ্ছেন। নিজের ভিতর এই আত্মবিশ্বাসটা নিয়ে আসুন।

কি নিয়ে ব্যবসা করতে চাচ্ছেন:

ব্যবসা করার সবচেয়ে বড় একটা ধাপ হলো এটা। আপনি কি নিয়ে ব্যবসা করছেন কিসের চাহিদা আছে এবং কিভাবে শুরু করতে যাচ্ছেন এ প্রশ্নটা অনেকে করে থাকে এবং সবাই এটা নিয়ে দ্বিধা-দ্বন্দ্বে থাকে। মনে রাখবেন সবসময়, আপনি যে বিষয়টা সবচেয়ে ভালো বোঝেন এবং সবচেয়ে ভালো ম্যানেজ করতে পারবেন সেই বিষয়ে যাবেন। পৃথিবীতে অনেক ব্যবসার আইডিয়া আছে কিন্তু বিশ্বাস করুন আপনি সব ব্যবসায় পারদর্শী হতে পারবেন না। আপনি যেটার ভিতর পারদর্শী এবং যেটা নিয়ে আপনি স্বপ্ন দেখেন যে জিনিসটা আপনার ভালো লাগে সেই জিনিসটা নিয়ে ব্যবসা শুরু করুন।

এখন বলতে পারেন ভাইয়া কোন আইডিয়া দিলেন না, আইডিয়া আমি কি দেবো আপনারাই আমাকে আইডিয়া দিতে পারবেন আপনার জীবনে কি কি আছে এবং কি কি ভালো লাগে, কথাটা শুনতে একটু অন্যরকম হলেও এটাই সত্য এবং বাস্তবতা।

কোন অভিজ্ঞ লোকের পরামর্শ নেওয়া:

এ জিনিসটা কোনোভাবেই অবহেলার যোগ্য নয়। আপনাকে অবশ্যই কার না করো পরামর্শ নিতে হবে। তাই বলে এখন বলেন না যে ভাই এত কিছু বললেন পরামর্শ দিলে সমস্যা কি? আপনি যদি একটু আশেপাশে লক্ষ্য করেন পরামর্শ দেওয়ার লোক অনেক আছে। কিন্তু আমি বলব কোন একজন সফল ব্যক্তির পরামর্শ গ্রহণ করুন।

সততা দিয়ে শুরু করা:

সততা ছাড়া ব্যবসা শুরু করে লাভ নেই। আপনি যদি ভেবে থাকেন মানুষকে ঠকিয়ে ব্যবসা করবেন তাহলে ওই ব্যবসা বেশি দিন টিকবে না এবং আপনি বড় ব্যবসায়ী হতে পারবেন না। এখন বলতে পারেন ভাইয়া এমন অনেক লোক কে আমি চিনি যারা অসৎ ভাবে ব্যবসা শুরু করে এখন অনেক বড় ব্যবসায়ী। একটু খোঁজ নিয়ে দেখুন তারা শুরু করেছিল হয়তো বা অসৎভাবে। কিন্তু তারা যা করেছে তা সহজ উপায় এবং মানুষের উপকারের জন্য করেছে।

বিশেষ দ্রষ্টব্য: সততা ব্যবসা নিয়ে চিন্তা করছেন সবচেয়ে বড় উদাহরণ হচ্ছে আমাদের হযরত মুহাম্মদ সাঃ। আমাদের প্রিয়নবী তিনিও ব্যবসা করেছেন, তার জীবনকাহিনী যদি পড়েন তাহলে জানতে পারবেন তার ব্যবসায় কি কি গুণাবলী ছিল। আপনি যদি সেগুলো অনুসরণ করতে পারেন, তাহলে আপনিও একদিন অনেক বড় ব্যবসায়ী হতে পারবেন ইনশাল্লাহ।

এখন আসি কিভাবে আপনার অনলাইন ব্যাপারটাকে আরও বাড়াতে পারবেন এ সম্বন্ধে কিছু কথা।

সরবরাহ এবং চাহিদা:

অনলাইন ব্যবসা বলুন আর অফলাইন ব্যবসা করুন সবচেয়ে বড় হাতিয়ার হল সরবরাহ এবং চাহিদা। আপনি বিশ্বাস করুন বা নাই করুন প্রত্যেক ব্যবসায়ী এ জিনিসটা শুরু থেকে অনুসরণ করে আসছে। বিশেষ করে যারা অনলাইনে ব্যবসা করে, যাদের ই-কমার্স সাইট আছে এবং যারা এফিলিয়েট বিজনেস করে এমনকি ড্রপশিপিং বিজনেস বাদ দেওয়ার মতো নয়। তারা সবাই একটা জিনিস খুঁজে কোথায় চাহিদা আছে এবং তারপর খুঁজেই কিভাবে আমি সেটা সরবরাহ করব ব্যাস আর কিছু লাগেনা।

বিশ্বাস না হলে চেষ্টা করে দেখবেন।

ম্যানেজমেন্ট ও পরিকল্পনা:

এখন বড় বড় কোম্পানিগুলো বা বড় বড় আইটি ফার্ম। বা বড় বড় যে ব্যবসায়ীরা থাকে তারা সবাই ম্যানেজমেন্ট এর উপরে অনেক গুরুত্ব দেয় এবং পরিকল্পনা ব্যবহৃত কিছু বলারই নাই। আপনি আপনার কোম্পানিকে বা ব্যবসাকে যত বড় করতে যাবেন আপনার পরিকল্পনা আরো অনেক বৃদ্ধি করতে হবে এবং আপনার ম্যানেজমেন্ট করার ক্ষমতা বা ম্যানেজমেন্ট করার পদ্ধতি কে আরো পরিবর্তন করতে হবে। ব্যবসায় অনেক সময় অনেক বিপদের সম্মুখীন হতে হয়, প্রত্যেকটা বিপদ বা ঝামেলা অতিক্রম করার জন্য আপনাকে সঠিক পরিকল্পনা করতে হবে। প্রথমে ভাববেন কাজটা কিভাবে করতে পারি। এবং সেটা করার জন্য কি কি উপায় আমাকে অনুসরণ করতে হবে? বাস তারপরে আর কিছু বলার নেই কাজে লেগে পড়ুন।

পরবর্তীতে আপনারা যদি চান কি ভাবে ব্যবসাটা আরো বাড়ানো যায় বিশেষ করে অনলাইন বিজনেস তাহলে পরবর্তীতে আমি এ সম্বন্ধে আরও পোস্ট নিয়ে আসব যদি আপনারা আমাকে আপনারা উৎসাহ প্রদান করেন।

Enjoyed this article? Stay informed by joining our newsletter!

Comments

You must be logged in to post a comment.

লেখক সম্পর্কেঃ